মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারের মাঝ পথে বোঝা গেল ভুল রোগী, অতঃপর… পড়ুন বিস্তারিত

একজন রোগীর মাথার রক্ত জমাট ছিল। তার অপারেশনের প্রস্তুতিও ছিল। অন্যদিকে আরেকজন রোগীর প্রয়োজন ছিল আঘাতপ্রাপ্ত জায়গায় সেলাইয়ের।

কিন্তু যার শুধুমাত্র সেলাইয়ের দরকার ছিল তাকেই চিকিৎসকরা অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে গেলেন। মাথার খুলি খুলে জমাট বাঁধা অংশও খুঁজতে লাগলেন। কিন্তু কোথাও তা দেখতে না পাওয়ায় তাদের মনে সন্দেহ হল। মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারের মাঝ পথে বোঝা গেল ভুল রোগী।

অতঃপর, সঙ্গে সঙ্গে যাবতীয় কর্মকাণ্ড বন্ধ করে সেলাই দিয়ে রোগীকে ওয়ার্ডে নিয়ে আসা হয়। সৌভাগ্যক্রমে রোগীর কোন বিপদ ঘটেনি। সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে কেনিয়ার নাইবোরি শহরে কেনিয়াট্টা ন্যাশনাল হাসপাতালে। এ নিয়ে কেনিয়ার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রীতিমতো সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টির জন্য আইডি ট্যাগ পরিবর্তনকেই দায়ী করছেন। হাসপাতালের নিয়ম অনুযায়ী, যে রোগীর অস্ত্রোপচার হওয়ার কথা থাকে তার নাম আলাদা করে ট্যাগে লেখা থাকে। কিভাবে তা বদলে গেল তা নিয়ে চিন্তিত হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও। এদিকে দায়িত্বে অবহেলার জন্য ইতিমধ্যে তারা হাসপাতালের নিউরো সার্জন, অ্যানেসথিয়াসিস্ট এবং দুইজন নার্সকে বরখাস্ত করেছে। ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাসপাতালের সিইও।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভুল করে যেই ব্যক্তির অপারেশন করা হয়েছিল তিনি এখন ভালো আছেন। অন্যদিকে যার মাথায় রক্ত জমাট বেঁধেছিল তার অপারেশনের প্রয়োজন পড়েনি। ধীরে ধীরে তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন।

সূত্র : বিবিসি

Leave a Reply