৩০ সেকেন্ডেই ঘুম এনে দেবে এই অভ্যাসগুলো

৩০ সেকেন্ডে ঘুম? যাদের সহজে ঘুম আসে না তারা হয়ত এক কথায় বাদ করে দেবেন এই সম্ভাবনাকে। কিন্তু বিজ্ঞানীরা বলছেন, অনুশীলন করলে সবই সম্ভব। নিজের মনকে প্রস্তুত করুন, ইতিবাচকভাবে ভাবুন যে ঘুম আসবে। আর ৩০ সেকেন্ডে ঘুমিয়ে পড়তে করুন এই কাজগুলো নিয়মিত-

বই পড়ুন

গবেষণায় দেখা গেছে, বই ঘুমাতে সাহায্য করে। নিজের চোখ সরিয়ে ইলেকট্রনিক্স যন্ত্র থেকে, বন্ধ করে দিন স্মার্টফোনটি। ঘরের আলো নিভিয়ে ল্যাম্পশেডের আলোয় বই নিয়ে পড়তে শুরু করুন। তবে অবশ্যই একঘেয়ে ধরনের বই। যেমন বই আপনি পড়তে ভালবাসেন, তেমন বই নিলে ঘুমানোর বদলে সাড়া রাত জেগে বই শেষ করার মত ঘটনা ঘটতে পারে। বিজ্ঞানীদের মতে, আমাদের মস্তিষ্ক একঘেয়েমিতা বেশিক্ষণ সহ্য করে না। নার্ভকে শিথিল করে এবং ঘুমাতে বাধ্য করে।

ঘুমের জন্য নির্দিষ্ট সময়

ঘুমের জন্য ঠিক করুন একটি নির্দিষ্ট সময়। প্রতিদিন সেই সময়ে ঘুমাতে যান। ধীরে ধীরে আপনার মস্তিষ্ক বুঝে যাবে তাকে ঠিক এই সময়ে ঘুমিয়ে পড়তে হবে। খুব বেশীদিন লাগবে না এই অভ্যস্ততা তৈরি করতে। মাত্র ১ সপ্তাহেই সেই নির্দিষ্ট সময়ে ঘুম নেমে আসবে আপনার চোখে। আর বিছানায় যেতেই ৩০ সেকেন্ডেই ঘুমিয়ে পড়বেন আপনি।

New blood test can detect early signs of 8 kinds of cancer scientists

have developed a noninvasive blood test that can detect signs of eight types of cancer long before any symptoms of the disease arise.

The test, which can also help doctors determine where in a person’s body the cancer is located, is called CancerSEEK. Its genesis is described in a paper published Thursday in the journal Science.

The authors said the new work represents the first noninvasive blood test that can screen for a range of cancers all at once: cancer of the ovary, liver, stomach, pancreas, esophagus, colon, lung and breast.

Together, these eight forms of cancer are responsible for more than 60 percent of cancer deaths in the United States, the authors said.

In addition, five of them — ovarian, liver, stomach, pancreatic and esophageal cancers — currently have no screening tests.

“The goal is to look for as many cancer types as possible in one test, and to identify cancer as early as possible,” said Nickolas Papadopoulos, a professor of oncology and pathology at Johns Hopkins who led the work. “We know from the data that when you find cancer early, it is easier to kill it by surgery or chemotherapy.”

CancerSEEK, which builds on 30 years of research, relies on two signals that a person might be harboring cancer.

[rpi]

First, it looks for 16 telltale genetic mutations in bits of free-floating DNA that have been deposited in the bloodstream by cancerous cells. Because these are present in such trace amounts, they can be very hard to find, Papadopoulos said. For example, one blood sample might have thousands of pieces of DNA that come from normal cells, and just two or five pieces from cancerous cells.

“We are dealing with a needle in a haystack,” he said.

To overcome this challenge, the team relied on recently developed digital technologies that allowed them to efficiently and cost-effectively sequence each individual piece of DNA one by one.

“If you take the hay in the haystack and go through it one by one, eventually you will find the needle,” Papadopoulos said

স্বাস্থ্যসম্মত খাবার খান

গবেষণায় দেখা গেছে, যারা তাদের খাদ্যাভ্যাসের প্রতি যত্নশীল তাদের ঘুম আসে সহজেই। সঠিক খাবার আপনার শরীরকে সুস্থ্য রাখে, ইমিউন সিস্টেম ভাল রাখে। সময়মত ঘুমাতেও সাহায্য করে। তাই ঘুমের সমস্যা থাকলে আগে নজর দিন আপনার ডায়েট চার্টের দিকে। পুষ্টিবিদদের সাথে কথা বলে নিজের সঠিক খাদ্যাভ্যাসটি বুঝে নিন এবং মেনে চলা শুরু করুন।

ঘর ঠান্ডা রাখুন

নিশ্চই খেয়াল করেছেন, শীতের সময় ঘুম ভাল হয়? কারণ ঠান্ডা আবহাওয়া ঘুমের জন্য ভাল। তাই আপনি যদি দ্রুত ঘুমিয়ে পড়তে চান তাহলে শোবার ঘরকে ঠান্ডা রাখুন। যেভাবে গরম পানি দিয়ে গোসলের পর ঘুম পায়, সেই একইভাবে সারাদিনের কর্মব্যস্ততা শেষে ঠান্ডা শীতল একটা ঘর সহজেই ঘুম এনে দেয়।

যোগ ব্যায়াম করুন

ঘুমানোর আগে কিছুক্ষণ যোগ ব্যায়াম করুন। গবেষকরা বলেন, যোগব্যায়াম শরীরকে শিথিল করে এবং ঘুম আনে। বিভিন্ন ধরণের যোগ ব্যায়াম আছে। যেমন ‘Salute to the Moon’ ব্যায়ামটি অনেক ধীর এবং শরীরের সঞ্চালন পদ্ধতি এমন যে সহজেই আপনি রিল্যাক্স বোধ করবেন। এরপর বিছানায় যাওয়ার সাথেই ঘুম।

গরম দুধ

ঘুমানোর আগে মায়েরা সেই প্রাচীনকাল থেকে সন্তানকে গরম দুধ পান করতে দেন। বিজ্ঞানীরা এই কাজকে সমর্থন করেন। তারা বলেন, গরম দুধ আসলেই ভাল ঘুমের জন্য দরকারি। প্রতদিন ঘুমাতে যাও্যার আগে এক গ্লাস গরম দুধ পান করা অভ্যাস করুন। নিয়মিত সঠিক সময়ে ঘুমাতে পারবেন।

এছাড়াও ক্যাফেইন আছে এমন খাবার থেকে দূরে থাকা, বিছানাকে আরামদায়ক করা, ঘরে শীতল আলোর লাইটের ব্যবহার, মেডিটেশন ইত্যাদি ঘুমকে প্রভাবিত করবে ইতিবাচকভাবে। নিজের প্রতি যত্নশীল হন, শত কাজের ফাকেও ঘুমকে প্রাধান্য দিন, ভাল থাকুন।

About Pronoydeb

Leave a Reply